ভিক্ষা করছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত মেকআপ আর্টিস্ট

তিনি স্পষ্টভাবে কথা বলতে পারেন না। বেশিরভাগ কথা বলেন ইশারায়। নাম কাজী হারুন। ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ সিনেমায় রূপসজ্জাকর হিসেবে কাজ করে প্রশংসিত হয়েছেন। ১৯৯৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘হৃদয় থেকে হৃদয়’ সিনেমায় কাজের জন্য পান জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।

কিন্তু গুণী এই মানুষটির জীবন কাটছে ভিক্ষাবৃত্তিতে, মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরে, হাত পেতে। বর্তমানে স্ত্রী মহুয়া আকতারকে নিয়ে দক্ষিণ যাত্রাবাড়ীর ফরিদাবাদ বস্তিতে থাকেন। তিনটি বাড়িতে ঝিয়ের কাজ করে ঘর ভাড়া দেন মহুয়া। আর ভিক্ষা করে জীবনযাপনের খরচ চালান হারুন।  

২০১৮ সালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে পাঁচলক্ষ টাকা অনুদান পেয়েছিলেন। টাকা দিয়ে চিকিৎসা আর সংসারের খরচ চালিয়েছেন এতদিন। টাকা ফুরিয়ে যেতেই তাকে পুনরায় পথে নামতে হয়েছে।

অভাবের তাড়নায় এরই মধ্যে বিক্রি করেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার হিসেবে পাওয়া সোনার মেডেল।

১৯৭৯ সালে চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করেছিলেন হারুন। ‘অন্য জীবন’, ‘শঙ্খমালা’, ‘গোলাপী এখন ঢাকায়’, ‘জীবন সংসার’সহ শতাধিক সিনেমায় কাজ করেছেন হারুন। হারুনের হাতের ছোঁয়ায় বদলে গেছে অনেক অভিনয়শিল্পীর চেহারা। অন্যকে সাজাতে গিয়ে নিজের জীবন সাজাতেই ভুলে গিয়েছিলেন তিনি।