নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় বন্ধ করে দেওয়া হলো নাটকের শুটিং

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় বন্ধ করে দেওয়া হলো নাটকের শুটিংকরোনা পরিস্থিতিতে গত মার্চ মাসে টেলিভিশনের সবকটি সংগঠন একযোগে শুটিং বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছিল। তবে সে আদেশ অমান্য করে গত রবিবার একটি নাটকের শুটিং শুরু করা হয়। বিষয়টি জানতে পেয়ে পরিচালকদের সংগঠন ডিরেক্টরস গিল্ড তাৎক্ষণিকভাবে শুটিং বন্ধ করে দেয়। ডিরেক্টরস গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক এসএ হক অলিক গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
জানা গেছে, পরিচালক আদিবাসী মিজান পূবাইলের হাসনাহেনা শুটিংবাড়িতে এটি শুরু করেছিলেন। ঈদের জন্য নাটকটি নির্মিত হচ্ছিল। এতে জনপ্রিয় অভিনেতা জাহিদ হাসানও উপস্থিত ছিলেন।
এসএ হক অলিক বলেন, ‘পূবাইলের হাসনাহেনা শুটিংবাড়িতে এর কাজ শুরু হয়েছিল। পরে তারা (নির্মাতা) তাদের ভুল বুঝতে পেরেছেন। ফোনে কথা বলার সঙ্গে সঙ্গে তারা এটি বন্ধ করে দিয়ে চলে এসেছেন।’’
শুটিং ইউনিট সূত্রে জানা যায়, এক বছর আগের পুরনো নাটকের অংশ বিশেষ শুটিং করতে গিয়েছিলেন পরিচালক মিজান ও তার দল। নাটকের প্রথমভাগের কাজ হয়েছিল নেপালে। রবিবার এর শেষ অংশ করছিলেন তারা। নাটকে জাহিদ হাসান মায়ের সাথে অভিমান করে দেশের বাইরে চলে যান। এবং সেখানে গিয়ে তার সব শেষ হয়ে যায়। জাহিদ ফের মায়ের কাছে ফেরত আসেন এবং ক্ষমা চান। শেষের এ অংশটুকুরই কাজ চলছিল সেখানে। এতে অংশ নিতে তিনটি গাড়িতে করে চিত্রগ্রাহক আনোয়ার হোসেন বুলু, জাহিদ হাসান ও মিজান পূবাইলে গিয়েছিলেন।