আপনি আমার সম্পত্তি, টাকা, যা আছে নিয়ে নিন, বদলে আপনার স্বামীকে দিয়ে দিন

মামলার কাউন্সেলর সরিতা রজনি জানিয়েছেন, ‘‌মধ্যপ্রদেশ রাজ্য প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ পদে কর্মরত এই মহিলার স্বামী ১০ বছর আগে প্রয়াত হয়েছিলেন ‌ ভোপালের সরকারি মহিলা অফিসারের কাণ্ড শুনে অবাক নেটদুনিয়া। আর কয়েকবছর বাকি চাকরির। ৫৭ বছরের ভোপালের মহিলা তাঁর থেকে ছোট, ৪৫ বছরের এক সহকর্মীর প্রেমে এমন পড়েছেন যে সটান চলে গিয়েছেন তাঁর বাড়িতে। গিয়ে ওই পুরুষ সহকর্মীর স্ত্রীকে বলেছেন, ‘‌আপনি আমার সমস্ত সম্পত্তি, টাকা, যা আছে নিয়ে নিন, বদলে আপনার স্বামীকে আমার কাছে দিয়ে দিন।’‌ ১৭ এপ্রিলের পর ভোপালের আদালতে এই বিষয়টি উঠেছে যা শুনে অবাক অনেকেই। মামলার কাউন্সেলর সরিতা রজনি জানিয়েছেন, ‘‌মধ্যপ্রদেশ রাজ্য প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ পদে কর্মরত এই মহিলার স্বামী ১০ বছর আগে প্রয়াত হয়েছিলেন। তাঁর জীবনে একাকীত্ব এসে ভিড় করে। তাই তাঁর সঙ্গে ওই ৪৫ বছরের সহকর্মীর একটা সম্পর্ক তৈরি হয়। তারপর করোনা ভাইরাসের সময় ওই সহকর্মী আর অফিসে আসতেন না। ২৫ মার্চের পর থেকে আবার মহিলার জীবনে একাকীত্ব ফিরে আসে। তাই মহিলা আর থাকতে না পেরে ১৭ এপ্রিল সরাসরি ওই পুরুষ সহকর্মীর বাড়িতে গিয়ে তাঁর স্ত্রীকে প্রস্তাব দেন, ওনার সব টাকা পয়সা, সম্পত্তি নিয়ে নিতে। বদলে তিনি শুধু ওই পুরুষটিকে চান। এরপর ঝামেলা শুরু হয়। তারপর বিষয়টি গড়ায় আদালত পর্যন্ত। ওই পুরুষও জানিয়ে দেন, তিনি মহিলাকে একা ছাড়তে পারবেন না। তখন স্ত্রী অভিযোগ করেন, বিয়ের ১৪ বছর পর আজ তাঁর স্বামী তাঁকে প্রতারণা করেছেন।