বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষায় সরকারকে আইনি নোটিশ

করোনা ভাইরাস পরীক্ষার বাণিজ্যিকীকরণ প্রতিরোধে সাধারণ জনগণের বিনামূল্যে ভাইরাসটির পরীক্ষার ব্যবস্থা করতে সরকারকে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

রবিবার (৩ মে) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হুমায়ুন কবির পল্লব ও মোহাম্মদ কাউসার ইমেইলে সরকারের মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট দফতরে এ নোটিশ পাঠান।

পরে হুমায়ুন কবির পল্লব ব্রেকিংনিউজকে বলেন, ‘করোনা টেস্টের বাণিজ্যিকীকরণ প্রতিরোধে সাধারণ জনগণের জন্য বিনামূল্যে টেস্টের ব্যবস্থা করতে ল’ অ্যান্ড লাইফ ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে ইমেইলের মাধ্যমে এ আইনি নোটিশ পাঠানো হয়।’

নোটিশে সরকারের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ছাড়াও বিবাদী করা হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি), বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল, আইসিডিডিআরবি ও আইইডিসিআরকে।

নোটিশে বলা হয়েছে, সরকার ইতোমধ্যে বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে করোনা টেস্টের অনুমতি দিয়েছে। যেখানে সরকার একটি নির্ধারিত মূল্যে টেস্টের জন্য বলেছে, সেটা হলো ৩ হাজার ৫০০ টাকা, যেটা অত্যন্ত ব্যয়বহুল। সাধারণ মানুষ করোনা পরীক্ষায় উদ্বুদ্ধ না হওয়ার পরিবর্তে নিরুৎসাহিত হবে।

যেহেতু করোনা একটি জাতীয় সমস্যা এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে যত বেশি টেস্ট করা সম্ভব হবে অল্প সময়ে ততো তাড়াতাড়ি ও সঠিকভাবে এই করোনাভাইরাস প্রতিরোধে কার্যকরী পদক্ষেপ নেওয়া যাবে। কিন্তু একটি টেস্টের দাম যদি ৩ হাজার ৫০০ টাকা হয় তাহলে দেশের সাধারণ মানুষ টেস্টে আগ্রহী হবে না এবং এখানে একটি বাণিজ্যিকীকরণ হবে টেস্ট নিয়ে।

এ ছাড়া নোটিশে বলা হয়, বেসরকারি হাসপাতালে করোনা টেস্টের ফি এত টাকা ধরা একটি বৈষম্যমূলক পদক্ষেপ। কারণ, কিছু মানুষ বিনামূল্যে টেস্ট করতে পারবে আর কিছু মানুষ ৩ হাজার ৫০০ টাকায় টেস্ট করাতে হবে এবং বেসরকারি হাসপাতালগুলো এই বিষয়টি নিয়ে একটি ব্যাপক বাণিজ্য করার সুযোগ পাবে, যেটা অনাকাঙ্ক্ষিত এবং অপ্রত্যাশিত।

আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ না করলে সরকারের সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে।