করোনা: খুলনায় অনলাইন ক্লাস চালু

দেশের চলমান করোনা পরিস্থিতির মোকাবিলায় ঘোষণা দেওয়া হয়েছে সাধারণ ছুটির। সেই সাথে বন্ধ রয়েছে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এর ফলে দীর্ঘ সময় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থীরা সংকটের মুখে। তাই শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে খুলনা জেলা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় অনলাইন ক্লাস চালু হয়েছে।
ফেসবুক এবং ইউটিউবে ভিডিও কনন্টেন্ট সমৃদ্ধ অনলাইন সেবাটি সোমবার দুপুরে খুলনার বিভাগীয় কমিশনার ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার উদ্বোধন করেন।
এসময় বিভাগীয় কমিশনার জানান, শিক্ষা ব্যবস্থার সংকট কাটিয়ে উঠতে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমটি কাজে লাগবে। যা বাংলাদেশের জন্য একটি মাইল ফলক হিসেবে কাজ করবে।
মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর ও প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সহযোগিতায় খুলনা জেলা প্রশাসন তথ্য প্রযুক্তি খাতকে কাজে লাগিয়ে শিক্ষার্থীদের জন্য ভিডিও কনন্টেন্টে ক্লাসগুলো ধারণ করে ইউটিউব এবং ফেসবুকে প্রচারের ব্যবস্থা করেছে।
সেবা দুটির লিংক ঠিকানা: ‘ডিজিটাল প্রাইমারী এডুকেশন খুলনা’ www.facebook.com/digital.pedu.khl  ও
‘ডিজিটাল সেকেন্ডারী এডুকেশন খুলনা’-এর www.youtube.com/channel/UCVKKwY8NME3v0VT3R6NC9zA।
ডিজিটাল প্রাইমারি এডুকেশন খুলনা এবং ডিজিটাল সেকেন্ডারী এডুকেশন খুলনা নামের দুটি ইউটিউব চ্যানেল ও একই নামের দুটি ফেসবুক পেজ চালু হয়েছে।
খুলনার অভিজ্ঞ শিক্ষকরা প্রতিটি ক্লাস ২০ মিনিটের উপযোগী করে তৈরি করেছেন। সপ্তাহের শুরুতে ক্লাসের একটি রুটিন প্রকাশ করা হবে, যার মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা কোন দিন, কখন, কোন ক্লাস হবে তা জানতে পারবে।
প্রাথমিক পর্যায়ে তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণি এবং মাধ্যমিক পর্যায়ের প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ ক্লাসের ভিডিও কনটেন্ট সরবরাহ করা হবে। প্রতিনিয়ত নতুন নতুন ভিডিও আপলোড অব্যাহত থাকবে। যার ফলে করোনাকাল অতিক্রান্ত হওয়ার পরও শিক্ষার্থীরা এর সুবিধা পাবে। খুলনার বাইরে বসেও এই শিক্ষা কার্যক্রমে অংশ নেওয়া যাবে।
উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর খুলনার উপ-পরিচালক নিভা রাণী পাঠক ও প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মেহেরুন নেছা ও অন্যান্যরা।
উদ্যোক্তারা আশা করছেন, অনলাইনভিত্তিক এই শিক্ষা কার্যক্রমটির ফলে করোনাকালের শিক্ষা ঘাটতি যেমন পুষিয়ে যাবে তেমনি শিক্ষার্থীদের কোচিং নির্ভরতাও কমবে।