র‌্যাবের অভিযানে ১৯৪ কেজি গাঁজাসহ ৭ মাদককারবারি আটক

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সৈয়দ নজরুল ইসলাম সড়ক সেতুর আশুগঞ্জ গোলচত্বর এলাকায় চেকপোস্ট বসিয়ে গাঁজা বহনকারী ৩টি পিকাপভ্যান ও ১টি ট্রাক আটক করেছেন র‌্যাব। 

বৃহস্পতিবার (০৭ মে) সকালে ১৯৪ কেজি গাঁজাসহ ৭ মাদক কারবারিকে আটক করেছে র‌্যাব-১৪, ভৈরব ক্যাম্পের সদস্যরা।  

এ সময় আটককৃত পিকআপ ও ট্রাক তল্লাশি করে ১৯৪ কেজি গাঁজা উদ্ধারসহ গাঁজা পাচারের সাথে জড়িত ৭ মাদক কারবারিকে আটক করেন র‌্যাব।

র‌্যাব জানান, র‌্যাব-১৪, ভৈরব ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাফিউদ্দিন মোহাম্মদ জোবায়ের ও স্কোয়াড কমান্ডার চন্দন দেবনাথের নেতৃত্বে পরিচালিত র‌্যাবের ওই অভিযানে ঢাকা মেট্রো-ন-১৫-৫৫৬০ পিকআপ থেকে ৩৮ কেজি ৫০০ গ্রাম গাঁজা ও গাঁজা বিক্রির নগদ ১০ হাজার টাকা উদ্ধারসহ হবিগঞ্জ চুনারুঘাটের শ্রীকুটা এলাকার মৃত আরজু মিয়ার ছেলে মো. ফজর আলী (৩৩), মৃত সিদ্দিক আলীর ছেলে মো. শুভকে (২৫) আটক করা হয়।

এছাড়া ঢাকা মেট্রো-ন-১৭-৩৬১৩ পিকআপভ্যান থেকে ৬০ কেজি গাঁজা ও মাদক বিক্রির ১ হাজার ৯শত টাকাসহ রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার বকতিপুর গ্রামের মোতালিব হোসেনের ছেলে মো. জামাল হোসেনকে (২৮) আটক করা হয়।

ঢাকা মেট্রো-ন-১১-২৮০৩ পিকআপ ভ্যান থেকে ৪০ কেজি গাঁজাসহ হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার নয়নপুর গ্রামের মৃত সুরুজ মিয়ার ছেলে তৈয়ব আলী (২৯) ও গাজীপুর জেলার জয়দেবপুর উপজেলার মির্জাপুর গ্রামের আব্দুল মন্নান মিয়ার ছেলে সোহরাবকে (২৫) আটক করা হয় এবং ঢাকা মেট্রো-ট-২২-৯৩৭১ ট্রাক থেকে ৫৬ কেজি গাঁজা ও মাদক বিক্রির নগদ ৮ হাজার টাকা উদ্ধারসহ টাঙ্গাইল জেলার গোপালপুর উপজেলার জামতৈল গ্রামের সাইফুল ইসলামের ছেলে মো. শিমুল (২১), ভাড়ারিয়া গ্রামের মৃত সাখাওয়াত হোসেনের ছেলে মো. হাফিজুর রহমানকে (২০) আটক করা হয়। 

র‌্যাব জানান, উদ্ধারকৃত গাঁজার আনুমানিক মূল্য ৫৮ লক্ষ ৩৫ হাজার টাকা। আটককৃতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।