তোদের মতো কত সাংবাদিককে মেরেছি, কেউ কিছু করতে পারেনি’

মাদারীপুরে সাবরীন জেরিন (২৫) নামে এক নারী সাংবাদিকের ওপর হামলা চালিয়েছে এলজিইডি অফিসের কর্মচারী ও ঠিকাদাররা। 

মঙ্গলবার (১০ মার্চ) সন্ধ্যায় মাদারীপুর এলজিইডি অফিসে এ ঘটনা ঘটে। তিনি দৈনিক আমাদের নতুন সময় পত্রিকার মাদারীপুর প্রতিনিধি। তাকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হামলার শিকার সাবরীন জেরিনের স্বামী আবদুল্লাহ আল মামুন দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদ পত্রিকার মাদারীপুর প্রতিনিধি। তিনি জানান, পত্রিকায় টেন্ডার বিজ্ঞাপন প্রকাশের জন্য মাদারীপুর এলজিইডি অফিসের ইউডি নাসির উদ্দীন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আমার স্ত্রীকে ফোন করে অফিসে ডাকেন। অফিসে যাওয়ার পর তিনি বিজ্ঞাপন না দিয়ে আমার স্ত্রীর সাথে খারাপ ব্যবহার ও অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করেন। স্ত্রীর ফোন পেয়ে আমি এলজিইডি অফিসে গেলে নাসির উদ্দীনের নেতৃত্বে ১০ থেকে ১৫ জন ঠিকাদার আমাকে মারপিট করে। এ সময় আমার স্ত্রীর তলপেটে লাথি, কিলঘুষি, চড়থাপ্পড় ও চুল ধরে টানাহেঁচড়া করে। বেধড়ক হামলায় আমার স্ত্রী গুরুতর আহত হয়।

সাবরীন জেরিনের তথ্য অনুযাই আবদুল্লাহ আল মামুন আরও জানান, মারধরের সময় নাসির উদ্দীন বলেন ‘তুই কিসের সাংবাদিক তোদের মত কত সাংবাদিক আমি জীবনে মেরেছি। কেউ আমার কিছু করতে পারেনি। তুই যা পারিস তাই করিস’। এ সময় আমাদের চিকৎকারে আশপাশের লোকজন এসে আমাদের জীবন রক্ষা করে।

মাদারীপুর সদর থানা ওসি কামরুল ইসলাম মিঞা জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা করেছেন আহত সাংবাদিক সাবরীন জেরিনের স্বামী আবদুল্লাহ আল মামুন। দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এদিকে এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে অবিলম্বে দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছেন মাদারীপুরে কর্মরত সাংবাদিকরা।