১৫ মে পর্যন্ত সাধারণ ছুটি বাড়াতে চাচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী

করোনা প্রতিরোধে সরকার সাধারণ ছুটি ১৫ মে পর্যন্ত বৃদ্ধি করার পরিকল্পনা করছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘করোনা ভাইরাসে কারণে দেশে ৫ মে পর্যন্ত সাধারণ ছুটি চলছে। সেই ছুটি ১৫ মে পর্যন্ত বৃদ্ধি করতে চাচ্ছি’। 

সোমবার (৪ মে) ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রংপুর বিভাগের সবগুলো জেলা প্রশাসনের সঙ্গে মতবিনিময় কালে এ কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ধীরে ধীরে আমরা কিছু শিল্প প্রতিষ্ঠান খুলে দিচ্ছি। যারা বের হবেন, তারা নিজে সুরক্ষিত থাকবেন, আর অপরকে সুরক্ষিত রাখবেন। আর অবশ্যই বের হলে মাস্ক পড়ে বের হবেন।

তিনি বলেন, রমজান মাস মানুষের সুবিধার জন্য সীমিত আকারে বাজার খোলার নির্দেশ দিয়েছি, যাতে মানুষ তার কেনাকাটা করতে পারে। আর ছোটখাটো ক্ষুদ্র শিল্প প্রতিষ্ঠান খুলতে পারবেন।

এর আগে অবশ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, সাধারণ ছুটি ১৬ মে পর্যন্ত বাড়তে পারে। ১৫ মে পর্যন্ত ছুটি বৃদ্ধির প্রস্তাব করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন দিলেই ১৫ মে পর্যন্ত ছুটির প্রজ্ঞাপন জারি হবে। এর সঙ্গে ১৬ মে শনিবার সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় এ দফায় সাধারণ ছুটির মেয়াদ হবে ১৬ মে পর্যন্ত।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বিস্তার রোধে সাধারণ ছুটি বাড়িয়ে সর্বশেষ প্রজ্ঞাপন জারি করা গত ২৩ এপ্রিল। সেবার সাধারণ ও সাপ্তাহিক মিলিয়ে ১০ দিন বেড়ে ছুটি ৫ মে পর্যন্ত করা হয়। এর আগে গত ১০ এপ্রিল চতুর্থ দফায় সাধারণ ছুটি ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছিল। পাশাপাশি মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণে আরো কঠোর নির্দেশনাও জারি করা হয়। প্রথম সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয় ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত। পরে তা ১১ এপ্রিল পর্যন্ত বর্ধিত করা হয় এবং ১২ ও ১৩ তারিখকে অন্তর্ভুক্ত করে সাধারণ ছুটির প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। এ ছুটি শেষে ১৪ এপ্রিল ছিল বাংলা নববর্ষের ছুটি।