৩০০ টাকার বিনিময়ে দুই নবজাতককে ফেলে দেয়া হয়

রাজধানীর মিরপুরের বুশরা ক্লিনিক থেকে পলিথিন মুড়ে দুই নবজাতককে ফেলে দেয়ার সময় এক যুবককে আটক করা হয়েছে। পলিথিনে থাকা অবস্থায় দুই নবজাতকের মৃত্যু হয়। রক্তাক্ত পলিথিন হাতে থাকা যুবকের গতিবিধি সন্দেহজনক হওয়ায় এলাকাবাসী তাকে আটক করে।খবর পেয়ে শনিবার দুপুরে তাকে আটক করে পুলিশ। এসময় তার পলিথিনের ভেতর থেকে দুই নবজাতকের লাশ পাওয়া যায়।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ওই যুবককে আটকের পর ৯৯৯ এ ফোন দিলে মিরপুর মডেল থানার পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে রমজান নামে ওই যুবককে আটক করে। ভবনের মালিককেও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। যদিও ক্লিনিকের কাউকে গ্রেফতার করেনি পুলিশ।এদিকে, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার হওয়া যুবক জানায়, ৩০০ টাকা দিয়ে বুশরা ক্লিনিকের ম্যানেজার মামুন তাকে পলিথিনে করে দুই নবজাতককে ফেলে দিতে বলে।
সে ফেলে দিতে গেলে লোকজন তাকে ধরে ফেলে। এ ঘটনার পরপরই ক্লিনিকের কর্মচারীরা ভেতরে থেকে দরজা বন্ধ করে দিয়ে ক্লিনিকের ভেতর অবস্থান নেয়। এসময় গণমাধ্যম কমীরা ম্যানেজার মামুনের টেলিফোন নাম্বার চাইলে অস্বীকার করা হয়।মিরপুর মডেল থানার তদন্তকারী কমকতা সৈয়দ মোহাম্মদ আক্তার হোসেন জানান, পলাতক ম্যানেজারকে ধরার চেষ্টা করছে। এর আগেও ক্লিনিকটিতে দুই বার অভিযান চালিয়ে ভুয়া ডাক্তার গ্রেফতার করে র‍্যাব।