মৃত্যুপূরী যুক্তরাষ্ট্র থেকে বাংলাদেশিদের আনতে বিশেষ ফ্লাইট

করোনা ভাইরাসে ছোবলে পুরো যুক্তরাষ্ট্রই এখন মৃত্যুপূরী। সেখানে ইতোমধ্যেই কয়েকশ বাংলাদেশি প্রাণ হারিয়েছেন। আটকে পড়েছেন অনেকেই। তাদের ফিরিয়ে আনতে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। ১৪ ও ১৫ মে কাতার এয়ারওয়েজের দুটি চার্টার্ড ফ্লাইটে করে ফিরিয়ে আনা হবে তাদের।

বুধবার (৬ মে) এক সংবাদবিজ্ঞপ্তিতে এতথ্য জানিয়েছে নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেট।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ওয়াশিংটন ডিসির বাংলাদেশ দূতাবাস, নিউইয়র্ক ও লস অ্যাঞ্জেলসের বাংলাদেশ কনস্যুলেটের সঙ্গে সম্মিলিত উদ্যোগে কাতার এয়ারওয়েজের চার্টার্ড ফ্লাইটে আটকে পড়াদের দেশে পাঠানো হবে। ফ্লাইটটি ডালস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর বা জন এফ কেনেডি বিমানবন্দর থেকে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উদ্দেশে উড়াল দেবে।

দেশে ফিরতে আগ্রহীদের অনলাইনে http://galaxyaviationbd.com/airticket/লিংকে রেজিস্ট্রেশন করার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে। সিট সীমিত থাকায় যত দ্রুত সম্ভব টিকিট কিনতে বলা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, ওয়াশিংটনের বাংলাদেশ দূতাবাস যুক্তরাষ্ট্র, আর্জেন্টিনা, বেলিজ, কলম্বিয়া, ডমিনিকান রিপাবলিক, গায়ানা ও ভেনেজুয়েলার করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে। এসব দেশে আটকে পড়াদের প্রয়োজনে যেকোনো সহযোগিতার জন্য ২৪ ঘণ্টা খোলা হটলাইনও (+১-২০২-৭৪০-৬৩০৫) চালু করেছে বাংলাদেশ দূতাবাস।

এর আগে মালয়েশিয়ায় আটকে পড়াদের দেশে ফিরিয়ে আনতে মিলিন্দো এয়ারের একটি চাটার্ড ফ্লাইটের ব্যবস্থা করেছে সরকার। কুয়ালালামপুরে বাংলাদেশ হাই কমিশন জানিয়েছে, বিশেষ এই ফ্লাইটটি ১৩ মে পরিচালিত হতে পারে।