সরকার কৌশলে দলীয় লোকদের চুরির সুযোগ দিচ্ছে: রিজভী

সরকার নিজ দলের লোকদের পেট ভরানোর জন্য নানা কৌশলে ত্রাণের মালামাল চুরি করার সুযোগ করে দিচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহম।

শনিবার (২৫ এপ্রিল) সকালে সূত্রাপুর এলাকায় রায়সা বাজার মোড়ে ত্রাণ বিতরণকালে তিনি এ মন্তব্য করেন। 

ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ওমর ফারুক কাউসারের উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাক, সুত্রাপুর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আজিজসহ বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।

এসময় রিজভী বলেন, ‘করোনায় আক্রান্ত হয়ে মানুষ মারা যাচ্ছে। অনেকে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। প্রতিদিন মৃত্যুর খবর আসছে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার পাশাপাশি অনেক মানুষ না খেয়েও মারা যাচ্ছে। কর্মহীন মানুষ যারা দিন আনে দিন খায় তাদের কোনও কাজ নেই। লকডাউনে মানুষ ঘরে বন্দি কাজ পাবে কোথায়। তাদের সহায়তা করার জন্য বিভিন্ন পাড়া-মহল্লায় জেলায় মহানগরীতে বিএনপির নেতাকর্মীরা এগিয়ে আসছে। গরিব-দুস্থদের মাঝে চাল ডাল তেল আলু বিতরণ করছেন বিএনপির নেতাকর্মীরা।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপির নেতাকর্মীরা যখন নিজেদের পকেটের টাকা দিয়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস ক্রয় করে মানুষকে দিচ্ছে তখন আমরা দেখতে পাচ্ছি, ক্ষমতাসীন দলের লোকদের খাটের নিচ থেকে তেল বেরুচ্ছে। গর্তের ভেতর থেকে চাল বের হচ্ছে। গ্রামের খড়ের পালার ভেতর থেকে হাজার হাজার বস্তা চাল পাওয়া যাচ্ছে। এটা কি জনকল্যাণমূলক সরকারের চরিত্র?’

তিনি আরও বলেন, ‘সরকারের তো এই মুহূর্তে এমনভাবে নেমে আসা উচিত যাতে প্রতিটি মানুষ কিছু পায়, প্রতিটি মানুষের পেট ভরে। তা না করে দলীয় লোকদের পেট ভরানোর জন্য নানা কৌশলে কায়দায় চুরি করার সুযোগ দেয়া হচ্ছে। এভাবে চলতে পারে না।’

ত্রাণ বিতরণের সময় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রিজভী বলেন, ‘আজকে সারা বিশ্বে মহামারি চলছে। বাংলাদেশে মহামারি মোকাবেলায় সাহস নিয়ে সবাইকে কাজ করতে হবে, এগিয়ে আসতে হবে। আমাদের নিরাপত্তা, মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে কাজ করতে হবে। অসহায় মানুষ যাতে না খেয়ে মারা না যায় সেই ব্যবস্থা করতে হবে। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করা উচিত ছিল। কিন্তু সরকার সেটা করেনি। তবে বিএনপি নেতাকর্মীরা অসহায়, দুস্থ ও গরিব মানুষের পাশে আছে এবং থাকবে।’