প্রধানমন্ত্রী হতে চান অমিতাভ বচ্চন

দেখতে দেখতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ১২ বৎসর কাটিয়ে ফেললেন ভারতীয় অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন। ব্লগ লেখা দিয়ে শুরু হয় তাঁর এই যাত্রা। আর দেশ জুড়ে চলা লকডাউনে অনুরাগীদের সঙ্গে বিগ বি-র আড্ডার যেন কোন বিরতি নেই।

এক যুগ কাটানোর আনন্দও তিনি শেয়ার করেছেন সোশ্যালে। সেইরকমই এক আড্ডায় আচমকা প্রশ্নবাণ, প্রধানমন্ত্রী হতে চান অমিতাভ বচ্চন? সঙ্গে সঙ্গে রসিকতায় মোড়া জবাব শাহেনশার। আরে ইয়ার! শুভ শুভ কিছু বলুন। বিগ বি-র রসিকতায় এভাবেই হাসির রোল উঠেছে নেটদুনিয়ায়।
অবশ্য স্বল্প সময়ের জন্য অমিতাভ বচ্চন রাজনীতিতে এসেছিলেন। ১৯৮৮ সালে এলাহাবাদ (প্রয়াগরাজ) থেকে লোকসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে জিতেছিলেন বিপুল ভোটে। তবে ৩ বছর পর তিনি পদত্যাগ করেন। পরে সেকথা তিনি জানান তাঁর ব্লগে।

শোলে-র প্রিমিয়ারের একটি ছবিও শেয়ার করেন শাহেনশা। ছবিতে রয়েছেন বিগ বি, বাবা-মা তেজি বচ্চন। আর হরিবংশ রাই বচ্চন ও জয়া বচ্চন।

৭৭ বছরেও কাজের দুনিয়ায় থমকে যাননি অমিতাভ। এখনও তাঁর ঝুলিতে একমুঠো ছবি। তাঁকে শেষ দেখা গেছে সুজয় ঘোষের থ্রিলার ‘বদলা’ ছবিতে। তাঁর সহ অভিনেতা ছিলেন তাপসী পান্নু।
আপাতত তিনি সুজিত সরকারের ‘গুলাবো সিতাবো’ ছবির শুটে ব্যস্ত। এই ছবিতে শাহেনশার সহ অভিনেতা আয়ুষ্মান খুরানা।

এছাড়াও, তাঁকে দেখা যাবে অয়ন মুখোপাধ্যায়ের ‘ব্রহ্মাস্ত্র’ ছবিতে। তাঁর সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করেছেন রণবীর কাপুর-আলিয়া ভাট। ইমরন হাসনির সঙ্গে অমিত অভিনয় করেছেন `চেহেরে` ছবিতে। পাইপলাইনে রয়েছে ‘ঝুন্দ’।